একসঙ্গে ৩ প্রতিষ্ঠান থেকে নিতেন বেতন-ভাতা, সাবেক মেয়রের বিরুদ্ধে মামলা

 একসঙ্গে ৩ প্রতিষ্ঠান থেকে নিতেন বেতন-ভাতা, সাবেক মেয়রের বিরুদ্ধে মামলা

খুলনা জেলার চালনা পৌরসভার সাবেক মেয়র ড. অচিন্ত কুমার মণ্ডলের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক।

একসঙ্গে তিন প্রতিষ্ঠানের দায়িত্ব পালন এবং বেতন-ভাতা গ্রহণের অভিযোগে দুদক এ মামলা করে।

বুধবার দুদক খুলনার উপ-পরিচালক মো. শাওন মিয়া বাদী হয়ে আট লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে এ মামলা করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, ২০১১ সালে চালনা পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হন ড. অচিন্ত কুমার মণ্ডল। এর আগে থেকে তিনি চালনা কেসি পাইলট স্কুল ও কলেজিয়েট স্কুলের অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। কিন্তু মেয়র হিসেবে দায়িত্ব ও বেতন-ভাতা গ্রহণের পাশাপাশি তিনি কলেজের বেতন-ভাতাও গ্রহণ করেন।

এরপর ২০১৬ সালে পুনরায় মেয়র নির্বাচিত না হওয়ায় তিনি আবারও দুটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে বেতন-ভাতা গ্রহণ করছিলেন। বিষয়টি মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে তদন্ত করে ড. অচিন্ত কুমার দোষী সাব্যস্ত করে কলেজের এমপিও বাতিল করা হয়।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালের আইন অনুযায়ী মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে অন্য কোনো লাভজনক পদে অধিষ্ঠিত থাকতে পারেন না কেউ। এর পরিপ্রেক্ষিতে আট লাখ সাত হাজার টাকা আত্মসাৎ এবং অপরাধমূলক অসদাচরণ করায় দণ্ডবিধির ৪০৯ এবং ১৯৪৭ সালের দুনীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় ড. অচিন্ত কুমার মণ্ডলের বিরুদ্ধে এ মামলাটি করা হয়।

এ ব্যাপারে ড. অচিন্ত কুমার মণ্ডলের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও কথা বলা সম্ভব হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *