এবার একদিনে বিসিএসসহ ৭ চাকরির পরীক্ষা

 এবার একদিনে বিসিএসসহ ৭ চাকরির পরীক্ষা

এবার একদিনে আগামী ২৯ অক্টোবর (শুক্রবার) সাতটি চাকরির পরীক্ষা নেওয়ার সূচি প্রকাশ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৪৩তম বিসিএসের প্রিলিমিনারির মতো গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষাও রয়েছে। এতে একাধিক পরীক্ষা একই সঙ্গে পড়ে যাওয়ায় অনেক প্রার্থীই এক বা দু’টির বেশি পরীক্ষায় অংশ নিতে পারছেন না।

সূচি অনুযায়ী, ২৯ অক্টোবর সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ৪৩তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। দেশের আট বিভাগে এই পরীক্ষা নেওয়া হবে। বিভিন্ন ক্যাডারে প্রথম শ্রেণির পদে এক হাজার ৮১৪ জন নিয়োগের এই পরীক্ষায় সাড়ে চার লাখ চাকরিপ্রার্থী অংশ নিচ্ছেন। এর আগে ১৫ অক্টোবর তারিখ নির্ধারণ করা হলেও দুর্গাপূজার ছুটির কারণে এই পরীক্ষাসূচি পরিবর্তন করে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। একই দিন শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের হিসাবরক্ষক পদে লিখিত পরীক্ষা রয়েছে বিকেল ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত। বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের ‘এসবিএ’ পদে নিয়োগের পরীক্ষা হবে সকাল ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের সাঁটমুদ্রাক্ষরিক-কাম-কম্পিউটার অপারেটর পদের ব্যাবহারিক পরীক্ষা রয়েছে সকাল ১০টা, সাড়ে ১১টা ও দুপুর আড়াইটায়। পদ্মা অয়েল কম্পানি লিমিটেডের বিভিন্ন পদে সকাল ৯টা ও দুপুর আড়াইটায় মৌখিক পরীক্ষা রয়েছে। অর্থ মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন পদের পরীক্ষার সূচি বিকেল ৩টা থেকে সাড়ে ৪টা। একই দিন বন বিভাগের বিভিন্ন পদে নিয়োগ পরীক্ষা হওয়ার কথা রয়েছে।

পিএসসির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ক্যাডার) নূর আহ্মদ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমরা ছয় মাস আগে তারিখ ঘোষণা করেছি। অন্যদের উচিত ছিল বিসিএসের এই পরীক্ষার সঙ্গে তাদের নিয়োগ পরীক্ষার তারিখ সমন্বয় করে নেওয়া। আমাদের সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া শেষ হয়েছে। এখন আর প্রিলিমিনারির তারিখ পেছানোর সুযোগ নেই। তবে আমরা ভবিষ্যতের জন্য সতর্ক থাকব।’

চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩২ করার দাবিতে গড়ে ওঠা আন্দোলনের সমন্বয়কারী মানিক হোসেন রিপন গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আগের দুই শুক্রবারে একাধিক চাকরির পরীক্ষা পড়েছে। অনেকেই একটির বেশি পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেননি। এখন ২৯ অক্টোবরেও একই অবস্থা হবে।’ 

তিনি জানান, প্রতিটি চাকরির জন্য আবেদন করতে ৫০০ থেকে ৭০০ টাকা খরচ হয়। একেকজন একাধিক আবেদন করছেন। যদি চাকরির পরীক্ষাই না দিতে পারি তাহলে কেন আবেদন নেওয়া হচ্ছে। পরীক্ষার সময়সূচি সমন্বয়ের আহ্বান জানিয়ে মানিক বলেন, এক দিনে যেন একটির বেশি সরকারি চাকরির পরীক্ষা নেওয়া না হয়।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ৮ অক্টোবর, শুক্রবার একদিনে ১৩ চাকরির পরীক্ষা নেওয়া হয়। সেদিন কোনো কোনো প্রার্থীর একাধিক পরীক্ষা পড়ে। কোনো কোনো পরীক্ষা হয় একই সময়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *