কলরেকর্ড ধরে হোটেলে পাওয়া গেল ঢাবি শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ

 কলরেকর্ড ধরে হোটেলে পাওয়া গেল ঢাবি শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ

রাজধানীর সেগুনবাগিচার আবাসিক একটি হোটেল থেকে গতকাল বুধবার রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাঁর নাম আদনান সাকিব রাব্বি (২৫)।

আদনান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের আবাসিক শিক্ষার্থী। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ২০১৪-১৫ সেশনের শিক্ষার্থী ছিলেন।

শাহবাগ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) পলাশ সাহা বলেন, আদনান সাকিব বিবাহিত ছিলেন। গতকাল আদনানের খোঁজ না পেয়ে তাঁর স্ত্রী নুসরাত আফরিন শাহবাগ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন । পরে আদনানের কল রেকর্ডের সূত্র ধরে সেগুনবাগিচার কর্ণফুলী আবাসিক হোটেলে তাঁর অবস্থান পাওয়া যায়। সেখানে গিয়ে রেজিস্ট্রেশন খাতায় তাঁর নাম দেখা যায়।

পরে হোটেলের দ্বিতীয় তলার ১০৭ নম্বর কক্ষের দরজা ভেঙে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে রশি প্যাঁচানো অবস্থায় আদনান সাকিবের ঝুলন্ত মরদেহ দেখা যায়। মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়।

এসআই পলাশ সাহা আরও জানান, হোটেল কক্ষ থেকে একটি চিরকুট পাওয়া গেছে। সেখানে লেখা ছিল, ‘আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়।’

আদনান সাকিবের বাড়ি নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার সোনাখুলিতে । তাঁর বাবার নাম আবদুল মালেক। আদনান সাকিব তিন ভাই ও দুই বোনের মধ্যে ছোট ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *