গাজীপুরে প্রেমিকাকে হত্যার পর প্রেমিকের আত্মহনন

 গাজীপুরে প্রেমিকাকে হত্যার পর প্রেমিকের আত্মহনন

গাজীপুরের কালীগঞ্জে প্রেমিকাকে হত্যার পর এক প্রেমিক আত্মহনন করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বুধবার রাত ১০ টার দিকে রক্তাক্ত মরদেহ দুটি প্রেমিকের ঘর থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় প্রেমিকা ইভানার মরদেহের ওপর ছুরি হাতে প্রেমিক হৃদয়ের মরদেহ পড়ে ছিল।

কালীগঞ্জ থানার এসআই সাইফুল ইসলাম জানান, নিহতরা হলো- কালীগঞ্জ উপজেলার বক্তারপুর ইউনিয়নের সাতানীপাড়া গ্রামের এনজিও কর্মী হৃদয় গমেজ (২৫) এবং একই উপজেলার বান্দাখোলা গ্রামের নার্সিং এর শিক্ষার্থী ইভানা রোজারিও (২২)। হৃদয় ও ইভানার মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) সকালে হৃদয়কে বাড়ি রেখে তার মা ও চাচা জমির দলিল করতে কালীগঞ্জ সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসে যান। সন্ধ্যায় তারা বাড়ি ফিরেন। এসময় হৃদয়ের মা ভেতর থেকে ঘরের দরজা জানালা আটকানো অবস্থায় দেখতে পেয়ে তিনি ডাকাডাকি করেও হৃদয়ের কোন সাড়া শব্দ পান নি। তবে ঘরের ভেতর উচ্চ শব্দে মিউজিক বাজছিল। একপর্যায়ে প্রতিবেশীরা উঁকি দিয়ে ঘরের ভিতরে ইভানা ও হৃদয়ের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহতদের মরদেহ দুটি উদ্ধার করে। ইভানার লাশের ওপর ছুরি হাতে হৃদয়ের লাশ পড়ে ছিল। নিহত ইভানার গলায়, ঘাড়ে ও গালে এবং হৃদয়ের পেটে ছুরিকাঘাতের একাধিক চিহ্ন রয়েছে। পুলিশ আরো জানায়, ধারণা করা হচ্ছে কোন বিরোধের কারণে বাড়ির লোকজনের অনুপস্থিতির সুযোগে প্রেমিকা ইভানাকে ঘরে ডেকে এনে তাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে হদয়। পরে নিজের পেটে ছুরিকাঘাত করে হৃদয় আত্মহত্যা করে। বাইরের লোকজন যাতে কোনো শব্দ শুনতে না পায় সেজন্য ঘরের দরজা জানালা আটকিয়ে জোরে গান ছাড়া ছিল। নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *