চট্টগ্রামে গ্যাসের আগুনে হতাহতের ঘটনায় ভবনমালিক গ্রেপ্তার

 চট্টগ্রামে গ্যাসের আগুনে হতাহতের ঘটনায় ভবনমালিক গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামে গ্যাসের আগুনে একই পরিবারের একজন নিহত ও পাঁচজন আহতের ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় ভবনমালিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে নগরের উত্তর কাট্টলী এলাকা থেকে ভবনমালিককে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁর নাম মমতাজ মিয়া।

আকবর শাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহির হোসেন আমাদের বার্তাকে বলেন, ঘটনার পর গা ঢাকা দেন ভবনমালিক মমতাজ মিয়া। পরে অভিযান চালিয়ে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আজ আদালতে রিমান্ডের আবেদন জানানো হবে।

ওসি জহির হোসেন আরও বলেন, মামলার আরেক আসামি ভবনটির তত্ত্বাবধায়ক মোহাম্মদ বখতিয়ারকে গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

গত সোমবার রাতে নগরের আকবর শাহ থানার উত্তর কাট্টলী ছয়তলা একটি ভবনের ফ্ল্যাটে গ্যাসের আগুনে দগ্ধ হন একই পরিবারের ছয়জন। তাঁদের মধ্যে সাজেদা বেগম নামের এক নারী গতকাল রাতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। বাকিরা চিকিৎসাধীন।

ঘটনার দিন রাতে পরিবারের এক সদস্য ফ্ল্যাটের একটি কক্ষে বৈদ্যুতিক ব্যাট দিয়ে মশা মারতে গেলে হঠাৎ বিস্ফোরণ হয়ে আগুন ধরে যায়। বাসাটির মধ্যে থাকা গ্যাসলাইনে লিকেজ থাকায় এ দুর্ঘটনা বলে পুলিশ ও কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি সূত্র জানায়।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী পরিবারের কর্তা জামাল শেখ বাদী হয়ে আকবর শাহ থানায় ভবনটির মালিকসহ দুজনের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগে মামলা করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, বাসার মধ্যে গ্যাসের গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে বলে বারবার মালিককে বলা হয়। কিন্তু মালিক কর্ণপাত করেননি। মালিকের অবহেলার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

গত বছরের ৯ নভেম্বর ওই ভবনের একই ফ্ল্যাটে গ্যাসের আগুনে দগ্ধ হন সাতজন। তাঁদের মধ্যে তিনজন মারা যান। এ ঘটনার পর ফ্ল্যাটটিতে কোনো ভাড়াটিয়া উঠছিলেন না। তিন মাস আগে একটি প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তাকর্মী জামাল শেখ তাঁর পরিবার নিয়ে ফ্ল্যাটটিতে ওঠেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *