চীনের নতুন হাইপারসনিক অস্ত্র উদ্বেগ বাড়িয়ে দিল যুক্তরাষ্ট্রের

 চীনের নতুন হাইপারসনিক অস্ত্র উদ্বেগ বাড়িয়ে দিল যুক্তরাষ্ট্রের

জুলাই ও আগস্টে দুটি নতুন হাইপারসনিক অস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে চীন। ফিন্যান্সিয়াল টাইমস (এফটি)-এর বরাত দিয়ে খবরটি জানিয়েছে আল জাজিরা।

ভূ-রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বিতা সাপেক্ষে চীনের অস্ত্র ভান্ডারের নতুন সক্ষমতা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

লন্ডন ভিত্তিক পত্রিকাটি বৃহস্পতিবার জানায়, ২৭ জুলাই কক্ষপথে একটি রকেট উৎক্ষেপণ করে চীন। যেখানে তারা পারমাণবিক-সক্ষমতাসম্পন্ন ‘হাইপারসনিক গ্লাইড যান’ চালানোর জন্য ব্যবস্থা নেয়।  মার্কিন গোয়েন্দাদের মূল্যায়নের সূত্র ধরে এ খবর দেওয়া হয়।

এর দুই সপ্তাহের বেশি সময় পর ১৩ আগস্ট দ্বিতীয় হাইপারসনিক পরীক্ষাটি চালায় চীন।

কয়েক দিন আগে আরেক প্রতিবেদনে প্রথম পরীক্ষাটি আগস্টে চালানো হয় বলে জানায় এফটি। ওই সময় চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, তারা শুধু একটি মহাকাশে উড়োজাহাজ উৎক্ষেপণ করেছে এবং এটি পরীক্ষা করা হয় ১৬ জুলাই।

মন্ত্রণালয়ে মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান সোমবার জানান, মহাকাশযানের পুনর্ব্যবহারজনিত প্রযুক্তি নিয়ে এটি তাদের রুটিন পরীক্ষা ছিল।

ঝাও-এর উদ্ধৃতি দিয়ে চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যম সিজিটিএন জানায়, মহাকাশযানের খরচ কমাতে এ পরীক্ষা ‘অপরিহার্য’ ছিল। এটি ‘শান্তিপূর্ণ উদ্দেশ্যে’ ছিল।

চলতি সপ্তাহের শুরুর দিকে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস জানান, জো বাইডেন প্রশাসন চীনের পারমাণবিক অস্ত্র সক্ষমতা ও নতুন প্রযুক্তি নিয়ে উদ্বিগ্ন।

মঙ্গলবার বাইডেনের সঙ্গে সফররত সাংবাদিকেরা প্রতিবেদনটি নিয়ে উদ্বিগ্ন কিনা এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ’।

এ দিকে মার্কিন সিনেটর অ্যাঙ্গাস কিং সোমবার চীনের নতুন অস্ত্রকে ‘কৌশলগত গেম-চেঞ্জার’ হিসেবে বর্ণনা করেন। যা কৌশলগত স্থিতিশীলতাকে পুরোপুরিভাবে ক্ষুণ্ন করার বিপজ্জনক দিকে পরিস্থিতিকে নিয়ে যাবে।

অনুমান ও বিশ্লেষণ অনুসারে, চীনের হাইপারসনিক অস্ত্রগুলো বায়ুমণ্ডলের ওপরে ঘণ্টায় ৬ হাজার ২০০ কিলোমিটার গতিতে ছুটতে পারে, যা শব্দের চেয়ে পাঁচগুণ বেশি গতির।  যেতে পারে ১ হাজার ২৩৫ কিলোমিটার পর্যন্ত এবং সবচেয়ে উন্নত রাডার ব্যবস্থাকে ফাঁকি দিতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *