জেএসসি পরীক্ষা থাকবে না, মূল্যায়ন ভিন্ন পদ্ধতিতে: শিক্ষামন্ত্রী

 জেএসসি পরীক্ষা থাকবে না, মূল্যায়ন ভিন্ন পদ্ধতিতে: শিক্ষামন্ত্রী

নতুন পদ্ধতি চালু হলে জেএসসি পরীক্ষা থাকবে না। তবে শিক্ষার্থীদের উত্তীর্ণের মূল্যায়ন ভিন্ন পদ্ধতিতে করা হবে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী ড.দীপু মনি।

আজ (১৪ নভেম্বর) সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ে পরীক্ষার কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে এ কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, দীর্ঘ দেড় বছর এটিই কোন পাবিলক পরীক্ষা। করোনার অতিমারির বিবেচনায় এবার সিলেবাসে আনা হয়েছে সংক্ষিপ্ততা। যা শিক্ষার্থীদের জন্য খুবই ভালো হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, প্রতিটি কেন্দ্রে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই পরীক্ষা নেয়া হলেও কেন্দ্রেরা বাইরে দেখা যাচ্ছে অভিভাকদের ব্যপক উপস্থিতি।যা এই মূহুর্তে খুবই সমস্যা। অভিভাকদের বলবো আপনারাও দূরত্ব বজায় রাখুন।

সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে পরীক্ষা হওয়ার বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, এটাতো কেবল মেধা যাচাই। আর মেধা যাচাইয়ের জন্য সব বিষয় পরীক্ষা নেয়া দরকার হয় না। তাছাড়া পৃথিবীর বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্নভাবে পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে। আমরাও নতুন কারকুলামে পরীক্ষা পদ্ধতিরও পরিবর্তন আনবো।

প্রশ্নফাঁসের কোন সুযোগ নেই উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, প্রশ্নফাঁস হওয়ার কোন সুযোগ নেই। তবে গুজবের অভাব নেই, গুজব কিন্তু কিছু লোক করে যাবে। আপনারা কেউ প্রশ্নফাঁসের ব্যাপারে কারো কথায় কান দিবেন না।

উল্লেখ্য যে,চলতি বছরে এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে ২২ লাখ ২৭ হাজার ১১৩ জন পরীক্ষার্থী। মোট ৩ হাজার ৬৭৯টি কেন্দ্রে এবারের এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এতে মোট ২৯ হাজার ৩৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা অংশ নিচ্ছে পরীক্ষায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *