জয়ের ছন্দ নিয়েই আজ খেলতে নামছেন টাইগাররা

 জয়ের ছন্দ নিয়েই আজ খেলতে নামছেন টাইগাররা

জিম্বাবুয়ে সফরে তিন সংস্করণেই ভালো ক্রিকেট খেলেছে দল। টি২০ সিরিজ জিতে দেশে ফিরেছেন মাহমুদুল্লাহরা। জয়ের ছন্দ নিয়ে আট দিনের ব্যবধানে আরেকটি টি২০ সিরিজ খেলতে নামছেন তারা। প্রতিপক্ষ বিশ্বের সেরা দলগুলোর একটি অস্ট্রেলিয়া। তিন সংস্করণেই ভালো খেলে তারা।

পাঁচ ম্যাচের এই সিরিজ শুরু হচ্ছে আজ থেকে। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টায় মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে প্রথম ম্যাচটি। বিটিভি, টি স্পোর্টস ও গাজী টিভিতে সরাসরি দেখা যাবে খেলা।

নিয়মিত অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ ওয়েস্ট ইন্ডিজে চোট পাওয়ায় অসিদের নতুন টি২০ অধিনায়ক করা হয়েছে ম্যাথু ওয়েডকে। তার নেতৃত্বে ঢাকায়ও মানসম্পন্ন ক্রিকেট খেলার ব্যাপারে আশাবাদী সফরকারীরা। ক্রিকেটের এ খুদে সংস্করণে উইন্ডিজের কাছে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ ৪-১ ব্যবধানে হেরে গেলেও বিশ্বকাপ সুপার লিগের তিন ম্যাচ একদিনের সিরিজটি ২-১-এ জিতেছে তারা। সেদিক থেকে জয়ের ছন্দে আছে অস্ট্রেলিয়াও। অবশ্য বার্বাডোজের মতো মিরপুরে খেলা অতটা সহজ হবে না।

বাংলাদেশের কন্ডিশন এশিয়ার বাইরের দলগুলোর জন্য সব সময় চ্যালেঞ্জিং। স্পিনারদের জন্য সুবিধা থাকে বেশি। মিরপুরে টার্নিং উইকেট করা হলে পাদপ্রদীপের আলোয় থাকবেন সাকিবরাই।

যদিও কোচ রাসেল ডমিঙ্গো বলেছেন, বিশ্বকাপ মাথায় রেখে স্পোর্টিং উইকেটে খেলতে চান। মিচেল স্টার্ক ও জশ হ্যাজেলউডের মতো ফাস্ট বোলার প্রতিপক্ষ দলে থাকায় স্পোর্টিং উইকেটে খেলার ঝুঁকি নাও নিতে পারে বিসিবি। মিচেল স্টার্ক দুর্দান্ত একজন বোলার। ৩৯টি টি২০ খেলে ৪৮ উইকেট শিকার তার। আর এক উইকেট পেলেই এককভাবে অস্ট্রেলিয়ার সর্বোচ্চ উইকেটের মালিক হবেন তিনি। শেন ওয়াটসনের সঙ্গে যৌথভাবে শীর্ষে এই অসি পেসারকে থামানোর পরিকল্পনা টাইগার শিবিরেও রয়েছে।

অসিদের বিপক্ষে অনুষ্ঠেয় প্রথম সিরিজে স্বাগতিকদের প্রেরণা জোগাচ্ছে দেশের মাটিতে খেলা। হোমে এক দশক ধরেই ভালো দল বাংলাদেশ। মাহমুদুল্লাহও সে সুনাম ধরে রাখতে চান, ‘আমাদের দলের জন্য এটা বড় একটা সুযোগ। প্রত্যেক খেলোয়াড়ের জন্যও সুযোগ নিজেদের সামর্থ্য দেখানোর। আমি সব সময় বিশ্বাস করি, ঘরের মাটিতে আমরা বেশ ভালো একটা দল। চেষ্টা করব আরও একবার সেটা যেন প্রমাণ করতে পারি।’

সাত-আটজন নিয়মিত ক্রিকেটারকে ছাড়াই টি২০ সিরিজটি খেলছে অস্ট্রেলিয়া। বাংলাদেশকেও তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম ও লিটন কুমার দাসকে ছাড়া খেলতে হচ্ছে। সাকিব আল হাসান, সৌম্য সরকারকে খেলতে হচ্ছে কুঁচকির চোট পরিচর্যা করে। তাই জিম্বাবুয়ের মতো অসিদের বিপক্ষেও তরুণদের ওপরই নির্ভর করতে হবে মাহমুদুল্লাহকে।

অধিনায়কের বিশ্বাস, তরুণরা স্কিল দেখিয়ে নামের প্রতি সুবিচার করে অসিদের বিপক্ষে টি২০তে প্রথম জয় এনে দেবেন। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বিশ্বকাপে চারটি টি২০ ম্যাচ খেলে সবক’টিতেই হেরেছে। নামের পাশে এবার জয় লেখানোর সুযোগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *