পাঁচ বছর পর সেরা এক হাজার বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় ঢাবি

 পাঁচ বছর পর সেরা এক হাজার বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় ঢাবি

যুক্তরাজ্যভিত্তিক শিক্ষা সাময়িকী ‘টাইমস হায়ার এডুকেশন’-এর প্রকাশিত সর্বশেষ র‍্যাঙ্কিংয়ে পাঁচ বছর পর বিশ্বসেরা এক হাজার বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় স্থান করে নিতে পেরেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। ২০১৬ সালের পর চলতি বছর প্রকাশিত র‍্যাঙ্কিংয়ে দেশের একমাত্র উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে সেরা এক হাজারে স্থান করে নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়টি। 

এর আগে, ২০১৬ সালে এই র‍্যাঙ্কিংয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান ছিল ৬০১ থেকে ৮০০-এর মধ্যে। এরপর ২০১৭ সালের র‍্যাঙ্কিংয়ে জায়গা হয়নি দেশের কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের। ২০১৮ সালের র‍্যাঙ্কিংয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এক হাজারেরও পর চলে যায়। এরপর ২০১৯, ২০২০ সালেও বাংলাদেশের কোনো বিশ্ববিদ্যালয় সেরা এক হাজারে অবস্থান নিতে পারেনি। এ বছর র‍্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের আরও কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয় স্থান পেয়েছে। এর মধ্যে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) এর অবস্থান ১০০১-১২০০ এর মধ্যে। আর বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এর অবস্থান ১২০০ এর পরে। অন্যদিকে, তালিকায় থাকলেও ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ও ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এর ক্ষেত্রে কোন ক্রম উল্লেখ করা হয়নি। 

র‍্যাঙ্কিংয়ে গত পাঁচ বছর ধরে শীর্ষ অবস্থান ধরে রেখেছে যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়। এরপর সেরা পাঁচে আছে ক্যালিফোর্নিয়া ইনস্টিটিউট অব টেকনোলোজি, হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়, স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়।

উল্লেখ্য, বিশ্বের ১ হাজার ৬৬১টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল্যায়নের ভিত্তিতে এ র‍্যাঙ্কিং করা হয়েছে।  র‍্যাঙ্কিং প্রস্তুতের ক্ষেত্রে শিক্ষাদান (টিচিং), গবেষণা (রিসার্চ), জ্ঞান বিতরণ (নলেজ ট্রান্সফার) ও  আন্তর্জাতিক দৃষ্টিভঙ্গি (ইন্টারন্যাশনাল আউটলুক) প্রভৃতি মানদণ্ড বিবেচনায় নেওয়া হয়। আর শিক্ষাদান (টিচিং), গবেষণা (রিসার্চ), গবেষণা-উদ্ধৃতি (সাইটেশন), আন্তর্জাতিক দৃষ্টিভঙ্গি (ইন্টারন্যাশনাল আউটলুক) এবং ইন্ডাস্ট্রি ইনকামের (শিল্পের সঙ্গে জ্ঞানের বিনিময়) ওপর ভিত্তি করে র‍্যাঙ্কিং বিন্যাস করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *