পাহাড়ের দুই পাশে ভারী অস্ত্র তাক করে রেখেছে মাসউদ বাহিনী

 পাহাড়ের দুই পাশে ভারী অস্ত্র তাক করে রেখেছে মাসউদ বাহিনী

আফগানিস্তানের পাঞ্জশির প্রদেশ দখলের জন্য তালেবান যোদ্ধারা সেখানে পৌঁছেছেন। তারা পাঞ্জশির ঘিরে ফেলেছেন। তবে তালেবান বাহিনীকে মোকাবিলায় প্রস্তুত পাঞ্জশিরের সেনারা।

ইতোমধ্যে তালেবানের ৪০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল পাঞ্জশিরের ন্যাশনাল রেজিসটেন্স ফ্রন্ট (এনআরএফ) বাহিনীর সঙ্গে বৈঠক করেছে বলে জানা গেছে। কিন্তু কোনো সমাধান হয়নি।

তালেবান যোদ্ধাদের প্রতিরোধে ভৌগোলিক কারণে অনেকটা সুবিধা রয়েছে পাঞ্জশির উপত্যকার। উপত্যকায় ঢোকার মূল রাস্তার দুপাশে চলছে এই বাহিনীর কড়া নজরদারি।

আহমদ মাসউদের অত্যাধুনিক অস্ত্রে সজ্জিত ৯ হাজার এনআরএফ সদস্য প্রস্তুত রয়েছেন। তারা মূল রাস্তার দু’পাশে পাহাড়ে মেশিনগান, মর্টার তাক করে বসে আছেন। রাস্তায় টহল দিচ্ছে বিশাল বাহিনী। তালেবান ঢুকলেই পুরো শক্তি দিয়ে তাদের প্রতিহত করবে।

তালেবান যোদ্ধারা আগেও পাঞ্জশিরে ঢোকার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু হামলার মুখে পড়ে পিছু হঠতে বাধ্য হন। তাই এবার পুরো শক্তি নিয়ে নামার চেষ্টা করছে তালেবান।

এদিকে স্থানীয় মিলিশিয়াদের হাতে চলে যাওয়া বাঘলান প্রদেশের তিনটি জেলা দখলমুক্ত করা হয়েছে বলে দাবি করেছে তালেবান। পাঞ্জশির প্রদেশও দখল করা হবে বলে হুশিয়ার দিয়েছেন তারা। তবে তারা রক্তপাত চান না। আলোচনা করে সমস্যার সমাধান চান।

সূত্র: আনন্দবাজার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *