পিসিবির সম্ভাব্য চেয়ারম্যান রমিজ রাজাকে যে পরামর্শ দিলেন আফ্রিদি

 পিসিবির সম্ভাব্য চেয়ারম্যান রমিজ রাজাকে যে পরামর্শ দিলেন আফ্রিদি

সাম্প্রতিক সময়ে পাকিস্তানের ক্রিকেটে গুঞ্জন পিসিবি চেয়ারম্যান হচ্ছেন সাবেক অধিনায়ক রমিজ রাজা। বিশ্বকাপজয়ী এ তারকা ওপেনারকে নাকি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান হিসেবে চান দেশটির প্রধানমন্ত্রী।

পিসিবির বর্তমান চেয়ারম্যান এহসান মানির তিন বছরের মেয়াদ কাল মঙ্গলবার শেষ হচ্ছে। সেপ্টেম্বর থেকে হয়তো রমিজ রাজাকে পিসিবি চেয়ারম্যান হিসেবে দেখা যেতে পারে। তবে এখনও চূড়ান্ত নয়।

কারণ পিসিবির বর্তমান চেয়ারম্যান এহসান মানি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে দেখা করে জানিয়েছেন, ক্রিকেটের স্বার্থে এ মুহূর্তে তাকে পিসিবির দরকার। সামনে ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে হোম সিরিজ এবং অক্টোবর-নভেম্বরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। হয়তো এসব বিবেচনা করে আরও কিছু দিনের জন্য এহসান মানির মেয়াদ বাড়ানো হতে পারে।

যদি এহসান মানির মেয়াদ বাড়ানো না হয়, তা হলে রমিজ রাজা হতে পারেন পিসিবির নতুন চেয়ারম্যান। আর নতুন চেয়ারম্যানের উদ্দেশ্যে বেশ কিছু পরামর্শ দিয়েছেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি ক্রিকেটার ও দলটির সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি।

করাচিতে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপে আফ্রিদি বলেন, রমিজ রাজাকে আমি আগাম অভিনন্দন জানিয়েছি। আমি সত্যিই চাই সে পাকিস্তান ক্রিকেটকে এগিয়ে নিয়ে যাক। আমি তাকে শুধু পিসিবির বর্তমান সিস্টেম পরিবর্তন না করার পরামর্শ দিয়েছি। কারণ আমি বিশ্বাস করি প্রতিটি সিস্টেমের ফল পাওয়ার জন্য কিছু সময় প্রয়োজন, তা অবিলম্বে পরিবর্তন করলে সমস্যা হবে।

পাকিস্তানের হয়ে ৩৯৮ ওয়ানডে, ৯৯টি টি-টোয়েন্টি আর ২৭ টেস্টে অংশ নিয়ে ১১ হাজার ১৯৬ রান সংগ্রহ করা আফ্রিদি আরও বলেন, পিসিবি চেয়ারম্যান হওয়ার জন্য রমিজ রাজা যোগ্য ব্যক্তি। তার মতো যোগ্যতাসম্পন্ন ব্যক্তি চেয়ারম্যান হলে পিসিবিতে পেশাদারিত্ব আসবে এবং আমার বিশ্বাস দেশের ক্রিকেটের আরও উন্নয়ন হবে। আপনি যখন এই ধরনের বড় পদে আসবেন, তখন ব্যক্তিগত পছন্দ বা অপছন্দ উপেক্ষা করে প্রতিষ্ঠানের ভালোর জন্য সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

অক্টোবর-নভেম্বরে আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সাবেক দুই অধিনায়ক মোহাম্মদ হাফিজ ও শোয়েব মালিককে দলে রাখার সমর্থন জানিয়ে পাকিস্তানের হয়ে ৫২৪ ম্যাচে ৫৪১ উইকেট শিকার করা আফ্রিদি বলেন, দল নির্বাচনের ক্ষেত্রে আমরা অতীতে অনেক কিছু করার চেষ্টা করেছি, তরুণ খেলোয়াড়দের সুযোগ দিয়েছি, যাদের কাছ থেকে আমাদের অনেক প্রত্যাশা ছিল। কিন্তু তারা পারফর্ম করতে পারেনি। এই শেষবারের মতো শোয়েব মালিক ও মোহাম্মদ হাফিজ আইসিসি বিশ্বকাপে খেলবে, আমাদের উচিত তাদের শেষবারের মতো সুযোগ করে দেওয়া।

পাকিস্তানের হয়ে রেকর্ড ৩৯৩ ওয়ানডেতে নেতৃত্ব দেওয়া সাবেক এ অধিনায়ক আরও বলেন, হাফিজ ও মালিক দুজনেই অতীতে এ ধরনের বড় টুর্নামেন্টে ভালো করেছে। আমি মনে করি আসন্ন বিশ্বকাপেও তাদের প্রয়োজন আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *