বাংলাদেশের আরো বিনিয়োগ চাইলেন দক্ষিণ সুদানের প্রেসিডেন্ট

 বাংলাদেশের আরো বিনিয়োগ চাইলেন দক্ষিণ সুদানের প্রেসিডেন্ট

বাংলাদেশ সরকার ও উদ্যোক্তাদের কাছ থেকে দক্ষিণ সুদানে আরো বিনিয়োগ বাড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট সালভা কির মায়ারদিত। এক্ষেত্রে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট।

শনিবার (২১ আগস্ট) দক্ষিণ সুদানের রাজধানী জুবায় দেশটির প্রেসিডেন্ট সালভা কির মায়ারদিতের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। এ সময় এমন আহ্বান জানান সুদানের প্রেসিডেন্ট। রবিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন দক্ষিণ সুদানের জুবায় প্রেসিডেন্ট সালভা কির মায়ারদিতের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। ড. আব্দুল মোমেন এ সময় প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং বাংলাদেশের জনগণের শুভেচ্ছা পৌঁছে দেন।

সালভা কির ড. মোমেনকে জানান, দেশটির পররাষ্ট্রনীতি অনুযায়ী বাংলাদেশ বিভিন্ন ধরনের সুবিধা নিতে পারে। ঢাকা ও জুবার কূটনৈতিক সম্পর্ক জোরদারে আরও উদ্যোগ নেবেন বলেও জানান সালভা। এছাড়া তিনি মোমেনকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানানোর অনুরোধ জানান।

বৈঠকে তারা দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের নানা দিক নিয়ে আলোচনা করেন। একই সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা আরও জোরদার করতে সম্মত হন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অসাধারণ উন্নয়নের কথা উল্লেখ করেন। তিনি বাংলাদেশের অভিজ্ঞতা ও জ্ঞান দক্ষিণ সুদানের উন্নয়নে কাজে লাগানোর প্রস্তাব দেন। বৈঠকে তারা কৃষি, আইসিটি, শিক্ষা, সামরিক সহযোগিতা, দক্ষিণ-দক্ষিণ সহযোগিতা অগ্রাধিকার খাত হিসেবে চিহ্নিত করেন৷

প্রেসিডেন্ট কিয়ার বাংলাদেশের উন্নয়নকে স্বীকৃতি দেন। তিনি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সহযোগিতার প্রস্তাবের জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। তিনি বিশেষ করে বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের অসামান্য অবদানের প্রশংসা করেন। দক্ষিণ সুদানের বিভিন্ন অঞ্চলে বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের বিভিন্ন বর্তমান অবকাঠামো ও সামাজিক উন্নয়নমূলক কার্যক্রমের প্রশংসা করেন।

দক্ষিণ সুদানের প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশের সরকার এবং উদ্যোক্তাদের কাছ থেকে আরো বিনিয়োগ ও অংশগ্রহণের আহ্বান জানান।

এছাড়া ড. আব্দুল মোমেন সুদানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ম ড. মরিয়ম আল-সাদিক আল-মাহদীর সঙ্গেও বৈঠক করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের জন্য বিশেষ করে নারীর ক্ষমতায়নে অসামান্য অবদানের জন্য সুদানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার প্রশংসা করেন। উভয়ে সহযোগিতা জোরদারে সম্মত হন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *