রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশকে সাহায্য করতে চায় অস্ট্রেলিয়া

 রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশকে সাহায্য করতে চায় অস্ট্রেলিয়া

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন ও জলবায়ু স্থিতিস্থাপকতা সৃষ্টিতে বাংলাদেশকে সহায়তা করতে চায় অস্ট্রেলিয়া।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে এ আগ্রহের কথা জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। 

মঙ্গলবার কপ-২৬ এর সাইডলাইন আলোচনায় তিনি এ আগ্রহ প্রকাশ করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম বলেন, অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে দুই নেতার এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে দুই নেতা দুদেশের মধ্যে সহযোগিতার বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। তারা বিশেষ করে জলবায়ু সহযোগিতা ও রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনে বাংলাদেশ ক্ষতিগ্রস্ত দেশ। অস্ট্রেলিয়ারও দাবানল, বন্যা, জলবায়ু পরিবর্তনজনিত চরম ক্ষতির অভিজ্ঞতা রয়েছে। তাই আমরা দুদেশ জলবায়ু ক্ষতিকর প্রভাবের বিরুদ্ধে স্থিতিস্থাপকতা গঠনে একসঙ্গে কাজ করতে পারি।

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাব মোকাবিলায় একসঙ্গে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেন। সেই সঙ্গে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

শেখ হাসিনা রোহিঙ্গা ইস্যুতে অব্যাহত সমর্থনের জন্য অস্ট্রেলিয়াকে ধন্যবাদ জানান।  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্ব নেতাদের শীর্ষ সম্মেলন এবং অন্যান্য উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে যোগদানের লক্ষে যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সে দুই সপ্তাহের সফরের উদ্দেশ্যে গত ৩১ অক্টোবর গ্লাসগো পৌঁছান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *