রোহিঙ্গা শিবিরে কথিত আরসা নেতা হাসিমের লাশ

 রোহিঙ্গা শিবিরে কথিত আরসা নেতা হাসিমের লাশ

কক্সবাজারের টেকনাফ হোয়াইক্যংয়ের রোহিঙ্গা শিবিরে কথিত আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির (আরসা) সেকেন্ড ইন কমান্ড হিসেবে পরিচিত মোহাম্মদ হাসিমের লাশ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে বিষয়টি আমাদের বার্ত াকে নিশ্চিত করেছেন হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মাহবুবুর রহমান। তবে কীভাবে ওই রোহিঙ্গা নেতার মৃত্যু হয়েছে সে বিষয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে স্পষ্ট কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

নিহত হাসিম টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের উনছিপ্রাংয়ের ২২নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মৃত নুরুল আমিনের ছেলে।
 
টেকনাফ থানার ওসি হাফিজুর রহমান চৌধুরী জানান, লাশ উদ্ধারে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

তবে ধারণা করা হচ্ছে, তাকে সাধারণ রোহিঙ্গারা পিটিয়ে হত্যা করেছে।

সম্প্রতি শরণার্থী শিবিরে রোহিঙ্গা নেতা মোহাম্মদ মুহিবুল্লাহ খুনের পর আরসার নামটি আবার সামনে আসে।

গত ২৯ সেপ্টেম্বর রাতে উখিয়ায় লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আরাকান রোহিঙ্গা সোসাইটি ফর পিস অ্যান্ড হিউম্যান রাইটসের চেয়ারম্যান মুহিবুল্লাহকে তার কার্যালয়ে গুলি চালিয়ে হত্যা করা হয়।

মুহিবুল্লাহর স্বজনদের অভিযোগ, আরসা সদস্যরাই সেই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছিল।

এর পর গত ২৩ অক্টোবর উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের ১৮ নম্বর ময়নারঘোনা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের একটি মাদ্রাসায় গুলি চালিয়ে হত্যা করা হয় ছয়জনকে।ওই হত্যাকাণ্ডেও হাসিমের দিকে সন্দেহের তীর ছিল বলে আইনশৃঙ্খলা কর্মকর্তারা জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *