শোক দিবসে যেসব সড়কে যেতে মানা

 শোক দিবসে যেসব সড়কে যেতে মানা

১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাত বার্ষিকী এবং জাতীয় শোক দিবস যথাযথ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় উদযাপনের লক্ষ্যে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) পক্ষ থেকে ট্রাফিক নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ১৫ আগস্ট ধানমন্ডি ৩২, বঙ্গবন্ধু স্মৃতি যাদুঘরের চারদিকের রাস্তায় যানবাহন চলাচলে এ নির্দেশনা জারি করা হয়।

এ উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রিপরিষদের সদস্যবর্গসহ বিভিন্ন স্তরের জনসাধারণ ধানমন্ডিস্থ বঙ্গবন্ধু স্মৃতি যাদুঘরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করবেন। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাতে ঢাকা মহানগরী ও আশপাশের এলাকা হতে বিভিন্ন পরিবহনযোগে ও পায়ে হেঁটে অসংখ্য নেতাকর্মীসহ সাধারণ জনগণ সেখানে আসবেন।

অনুষ্ঠানে আগত অতিথিদের যানবাহন সুষ্ঠুভাবে চলাচল ও যানজট পরিহারের লক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি যাদুঘর এলাকায় ১৫ আগস্ট ভোর হতে অনুষ্ঠান শেষ না হওয়া পর্যন্ত বিকল্প পথে যান চলাচলের জন্য গাড়ি চালক ও ব্যবহারকারীদের প্রতি ডিএমপির পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

মিরপুর গাবতলী থেকে আসা রাসেল স্কোয়ার আজিমপুর অভিমুখী যাত্রীবাহী যানবাহন মানিকমিয়া এভিনিউ ধানমন্ডি ২৭ ডানে মোড় নিয়ে শংকর জিগাতলা সাইন্সল্যাব হয়ে গন্তব্যে পৌঁছাবে। এ ছাড়া নিউমার্কেট ও সাইন্সল্যাব হতে আসা রাসেল স্কোয়ার অভিমুখী যাত্রীবাহী যানবাহন ধানমন্ডি ২ নম্বর রোড বামে মোড় নিয়ে জিগাতলা শংকর হয়ে গন্তব্যে পৌঁছাবে। এদিকে রেইনবো এফডিসি হতে আগত রাসেল স্কোয়ার অভিমুখী যাত্রীবাহী বাস সোনারগাঁও ক্রসিং বামে মোড় নিয়ে বাংলামটর দিয়ে শাহবাগ হয়ে গন্তব্যে পৌঁছাবে।

আমন্ত্রিত অতিথিদের যাতায়তের পথ (যানবাহন চলাচল) মানিক মিয়া এভিনিউ ধানমন্ডি ২৭ মেট্রো শপিংমল ডানে মোড় আহসানিয়া মিশন ক্রসিং বামে মোড় ৩২নং পশ্চিম প্রান্তে পৌঁছাবে। ৩২নং ব্রীজের উত্তরের ১১নম্বর রোডের উত্তর ও পশ্চিম প্রান্ত পতাকাবাহী, পিজিআর, এসএসএফ, ফায়ার সার্ভিস, বাহিনীর প্রধানসহ আইজিপি ও সিনিয়র সচিব বা সচিব পদমর্যাদার সকল গাড়ি পার্কিং করবে। সংসদ সদস্যসহ রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সকল গাড়ি ৩২ নম্বর ব্রীজের দক্ষিণে পূর্ব ও পশ্চিম প্রান্তে পার্কিং করবে। আহসানিয়া মিশনের উত্তর রাস্তায় আইন শৃংখলা বাহিনীর সকল গাড়ি থাকবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।

জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচি চলাকালীন যানবাহন চলাচলে শৃঙ্খলা রক্ষা ও যানজট এড়ানোর লক্ষ্যে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ জনসাধারণের সর্বাত্মক সহযোগিতা চেয়েছে। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ নাগরিকদের যানবাহন চলাচলে সাময়িকভাবে বিঘ্ন ঘটায় আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *