সংসার করতে চান সেই জাপানি মা, বাবার ‘না’

 সংসার করতে চান সেই জাপানি মা, বাবার ‘না’

দুই মেয়েকে নিয়ে কোনো সমঝোতায় পৌঁছাতে পারেননি বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক ইমরান শরীফ ও জাপানি নাগরিক নাকানো এরিকো দম্পতি। একত্রে বসে তাদের সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময় দিয়েছেন হাইকোর্ট। তবে এরিকো স্বামী-সন্তান নিয়ে টোকিওতে গিয়ে নতুনভাবে সংসার করতে চান বলে তার আইনজীবীর মাধ্যমে আদালতে আবেদন জানিয়েছেন। এ বিষয়ে স্বামী ইমরান শরীফ রাজি না হওয়ায় এখনও সমঝোতা পৌঁছানো যায়নি।

মঙ্গলবার এ দম্পতি ও তাদের দুই মেয়ের বিষয়ে বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমান সমন্বয়ে সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে শুনানি হয়। আদালত শুনানি নিয়ে মুলতবি করে এ আদেশ দেন। বৃহস্পতিবার ফের এ বিষয়ে শুনানি হবে।

আদালতে জাপানি মায়ের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মোহাম্মদ শিশির মনির। আর বাবার পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ফিদা এম কামাল, ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ, ফাওজিয়া করিম ফিরোজ ও ব্যারিস্টার মোস্তাফিজুর রহমান।

এরিকোর আইনজীবী বলেন, আদালতের নির্দেশনায় ইমরান শরীফের আইনজীবীদের সঙ্গে বসেছিলাম। দুই শিশুর মায়ের পক্ষ থেকে আমরা তাদের প্রস্তাব জানিয়েছিলাম। কিন্তু প্রস্তাবের বিষয়ে তাদের পক্ষ থেকে কিছু জানানো হয়নি। এরিকো চান সব কিছু ভুলে স্বামী-সন্তান নিয়ে জাপানে গিয়ে নতুন জীবন শুরু করতে।

এর আগে হাইকোর্টের নির্দেশনায় গত ১৭ সেপ্টেম্বর থেকে গুলশানের ভাড়া ফ্ল্যাটে দুই শিশুর সঙ্গে দিনে বাবা ও রাতে মা থাকছেন। ওইদিন আদালত শিশুদের জন্য মঙ্গল হয় এবং দেশের ভাবমূর্তি রক্ষায় বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখার জন্য উভয় পক্ষের আইনজীবীকে একটি সুন্দর সমাধান খুঁজতে বলেছিলেন আদালত। একইসঙ্গে ২৮ সেপ্টেম্বর শুনানির দিন ঠিক করেন আদালত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *