সোহেলকে ফেরাতে তিন দফা চিঠি, সাড়া মিলছে না দিল্লির

 সোহেলকে ফেরাতে তিন দফা চিঠি, সাড়া মিলছে না দিল্লির

ই-অরেঞ্জের মাধ্যমে গ্রাহকের বিপুল অঙ্কের টাকা হাতানোর ঘটনায় বনানী থানার সাময়িক বরখাস্ত পরিদর্শক শেখ সোহেল রানাকে ভারত থেকে ফিরিয়ে আনতে তৃতীয় দফায় চিঠি পাঠালেও সাড়া দেয়নি দিল্লি।

বাংলাদেশ পুলিশের পক্ষ থেকে ভারতের ন্যাশনাল সেন্ট্রাল ব্যুরোকে (এনসিবি) চিঠিগুলো দেওয়া হয়। সর্বশেষ চিঠি দেওয়া হয় গত ১৮ সেপ্টেম্বর। এর আগে বাংলাদেশ পুলিশের এনসিবি শাখা থেকে গত ৫ সেপ্টেম্বর প্রথম ও ৭ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় দফায় অতিরিক্ত তথ্য সংযুক্ত করে চিঠি পাঠানো হয়।

এ ব্যাপারে পুলিশ সদর দপ্তরের ন্যাশনাল সেন্ট্রাল ব্যুরোর (এনসিবি) সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি) মহিউল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, ভারতে গ্রেফতার সোহেল রানাকে ফেরত চেয়ে ৭ সেপ্টেম্বর দিল্লি এনসিবিকে পাঠানো চিঠির সাড়া না পেয়ে ১৮ সেপ্টেম্বর তৃতীয় দফায় চিঠি দেওয়া হয়েছে। যদিও তিন দফা চিঠির কোনোটিরই জবাব আমরা পাইনি।

গত ৩ সেপ্টেম্বর ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহারের চ্যাংড়াবান্দায় ওই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) হাতে ধরা পড়েন সোহেল রানা।

গত ১৭ আগস্ট অগ্রিম অর্থ পরিশোধের পরও মাসের পর মাস পণ্য না পাওয়ায় ই-অরেঞ্জের বিরুদ্ধে মামলা করেন প্রতারণার শিকার গ্রাহক মো. তাহেরুল ইসলাম। গ্রাহকের ১ হাজার ১০০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ওই মামলা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *