১২-১৭ বছরের শিক্ষার্থীদের টিকার দেওয়ার প্রস্তুতি শেষের দিকে

 ১২-১৭ বছরের শিক্ষার্থীদের টিকার দেওয়ার প্রস্তুতি শেষের দিকে

১২ থেকে ১৭ বছরের শিক্ষার্থীদের টিকার আওতায় আনার প্রস্তুতি প্রায় শেষের দিকে। ২২ লাখ পরীক্ষার্থীকে কতো দ্রুত সময়ের মধ্যে করোনার টিকা দেওয়া যেতে পারে তার কাজও চলছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

আজ মঙ্গলবার সকালে চাঁদপুর হাসান আলী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন। এসময় শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন- জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ, জেলা পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা গিয়াসউদ্দিন পাটোয়ারী প্রমুখ। 

ডা. দীপু মনি বলেছেন, করোনার কারণে নির্ধারিত সময়ের চেয়ে ৯ মাস পরে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। দেরিতে পরীক্ষার কারণে পরীক্ষার্থীদের যে ক্ষতি হয়েছে, তা পুষিয়ে নেওয়ার জন্য সমন্বয়ের কাজ করছে সরকার।

তিনি আরো বলেন, ভয়াবহ মহামারির ধকল কাটিয়ে এখন যে পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে, তার জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রচেষ্টা এবং দেশবাসীর আন্তরিকতা ছিল। সবার সহযোগিতা ছিল বলেই এখন শান্তিপূর্ণ পরিবেশে তা সম্ভব হয়েছে।

পরে শিক্ষামন্ত্রী চাঁদপুর আলআমিন স্কুল অ্যান্ড কলেজে শিক্ষার্থীদের টিকা কার্যক্রম এবং ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট চাঁদপুর জেনরেল হাসপাতালে নবজাতক পরিচর্যা কেন্দ্রের উদ্বোধন করেন। এতে হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মাহাবুবুর রহমান, জেলা সিভিল সার্জন (ভারপ্রাপ্ত) ডা. গোলাম কাওসার হিমেল উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *