৭৪ বছর পর ইংলিশ লিগে এসেই হুল ফোটাল ‘মৌমাছির দল’

 ৭৪ বছর পর ইংলিশ লিগে এসেই হুল ফোটাল ‘মৌমাছির দল’

ব্রেন্টফোর্ডের জন্য এর চেয়ে দারুণ উপলক্ষ হয়তো আর হতে পারত না!

৭৪ বছর পর এবার ইংল্যান্ডের ফুটবলের সর্বোচ্চ স্তরে উঠে এসেছে ক্লাবটি। প্রিমিয়ার লিগের নতুন মৌসুমের শুরুটাও কাল হয়েছে ব্রেন্টফোর্ডের মাঠে ম্যাচ দিয়েই। তাতে করোনাকালে এই প্রথম পূর্ণ গ্যালারিতে কোনো ম্যাচ দেখল প্রিমিয়ার লিগ।

এমন একটা উপলক্ষ জয়ে রাঙাতে না পারলে ব্রেন্টফোর্ডকে নিয়ে দুকথা হতো না, কিন্তু তাতে গল্পটাও তো পূর্ণ হতো না। ব্রেন্টফোর্ড নিশ্চিত করল, গল্পটা পূর্ণতা পাচ্ছে। ‘দ্য বিজ’ বা মৌমাছির দল খ্যাত ক্লাবটা যেন আর্সেনালকে হুল ফোটাল। কাল নিজেদের মাঠে এক সময়ের পরাক্রমশালী আর্সেনালকে ২-০ গোলে হারিয়ে ৭৪ বছর পর ইংলিশ ফুটবলের সর্বোচ্চ স্তরে প্রথম ম্যাচ রাঙিয়ে দেয় ব্রেন্টফোর্ড!

সহকারী কোচের পদ থেকে পদোন্নতি পেয়ে ড্যানিশ কোচ থমাস ফ্রাঙ্ক দুবছর আগে মূল কোচের দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই ব্রেন্টফোর্ড স্বপ্ন দেখছিল প্রিমিয়ার লিগে খেলার। মূলত, ৩-৪-৩ ছকে আক্রমণাত্মক গতিময় খেলায় ইংলিশ ফুটবলের দ্বিতীয় বিভাগ চ্যাম্পিয়নশিপ মাতিয়েছে ব্রেন্টফোর্ড।

আগের মৌসুমেই প্রিমিয়ার লিগে প্রায় উঠে গিয়েছিল বলে! সেবার চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে প্রিমিয়ার লিগে ওঠার প্লে-অফের ফাইনালে ফুলহামের কাছে হেরে স্বপ্নটা পূরণ হয়নি।

কিন্তু গত মৌসুমে ভাগ্য আর ব্রেন্টফোর্ডকে কাঁদায়নি। এবারও প্লে-অফের ফাইনালেই খেলেছে ‘দি বিজ’, কিন্তু এবার সোয়ানসি সিটিকে হারিয়ে ওঠে প্রিমিয়ার লিগে—ইংলিশ ফুটবলের সর্বোচ্চ স্তরে খেলার যে স্বাদ এর আগে ব্রেন্টফোর্ডের হয়েছিল ১৯৪৬-৪৭ মৌসুমে!

মাঝে সাতটি দশক কেটে গেছে, ব্রেন্টফোর্ডের সমর্থকদের কত প্রজন্ম হারিয়ে গেছে প্রিয় ক্লাবকে কোনো এক দিন সর্বোচ্চ স্তরে খেলতে দেখার অপূর্ণ স্বপ্ন বুকে নিয়ে।

সে স্বপ্ন পূরণের ক্ষণ যখন এল, সেটি কী দারুণভাবেই না রাঙাল ব্রেন্টফোর্ড। আর্সেনালের মূল দুই স্ট্রাইকার পিয়ের-এমেরিক অবামেয়াং ও আলেকজান্দার লাকাজেত অসুস্থতার কারণে ছিলেন না ঠিকই—সে জায়গায় তরুণ ফ্লোরিয়ান বালোগুনের প্রিমিয়ার লিগ অভিষেক হয়েছে।

নতুন দলে প্রথম নেমেছেন এই মৌসুমে আর্সেনালে যোগ দেওয়া দুই তরুণ ডিফেন্ডার বেন হোয়াইট ও মিডফিল্ডার আলবার্ট সাম্বি লোকোঙ্গা। তারুণ্যের পতাকা উড়িয়ে আর্সেনালের একাদশে ছিলেন গাব্রিয়েল মার্তিনেল্লি, এমিল স্মিথ-রো, নিকোলাস পেপেও। কিন্তু দলটা তো আর্সেনালই, ধারে-ভারে ব্রেন্টফোর্ডের তাদের সামনে টিকতে পারার কথা ছিল না।

কিন্তু ম্যাচের গল্পটা হলো ভিন্ন। শুরুতেই স্ট্রাইকার ব্রায়ান এমবুয়েমো কাঁপিয়ে দেন আর্সেনালের পোস্ট। ২২ মিনিটে উইঙ্গার সের্হি কানিওস উচ্ছ্বাসে ভাসিয়েছেন ব্রেন্টফোর্ডের সাড়ে ১৭ হাজার ধারণক্ষমতার স্টেডিয়ামকে, ৭৩ মিনিটে আর্সেনালের ভুলে ভরা রক্ষণের ফায়দা তুলে দলের দ্বিতীয় গোল করেছেন ক্রিস্টিয়ান নরগার্ড।

বলের দখল, শটের সংখ্যায় স্বাভাবিকভাবেই আর্সেনালই এগিয়ে ছিল, দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচে ফেরার অনেক চেষ্টাও করেছে আর্সেনাল, কিন্তু দিনটা ব্রেন্টফোর্ডের হবে—বিধিলিপি সম্ভবত এমনই ছিল!

ছিল বলেই ১৯৪৭ সালের এপ্রিলে লিডস ইউনাইটেডের বিপক্ষে জয়ের পর ইংল্যান্ডের প্রথম বিভাগে জয়ের স্বাদ পাওয়া হলো ‘মৌমাছির দল’-এর। বিধিলিপি ছিল বলেই প্রিমিয়ার লিগ যুগে লন্ডনের প্রথম ক্লাব হিসেবে নিজেদের ইতিহাসের প্রথম ম্যাচ জেতার কীর্তি হলো ব্রেন্টফোর্ডের

আর ৭৪ বছর পর যেহেতু প্রথম ম্যাচ জিতেছে, সেটিও যেহেতু ছিল লিগ মৌসুমেরই প্রথম ম্যাচ, সেদিনে যেহেতু আর কোনো ম্যাচ হয়নি, প্রিমিয়ার লিগের পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে ওঠার স্বাদও পেয়ে গেল ব্রেন্টফোর্ড! কত বছর পর? ৭৪! ফুটবলের পরিসংখ্যানবিষয়ক টুইটার পেজ অপ্টা দিন-তারিখ হিসাব করে জানাচ্ছে, ৭৪ বছর ৩৪৬ দিন। ১৯৪৬ সালের ১ সেপ্টেম্বরের এই প্রথম এ স্বাদ পাচ্ছে ব্রেন্টফোর্ড।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *