ফের আত্মপক্ষ সমর্থনের সময় পেলেন সেই শিক্ষক

 ফের আত্মপক্ষ সমর্থনের সময় পেলেন সেই শিক্ষক

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের (রবি) ১৪ শিক্ষার্থীর চুল কাটার ঘটনায় আত্মপক্ষ সমর্থনে সাক্ষ্য দিতে তদন্ত কমিটি অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিনকে আবারও সময় দিলেন। এ দফায় তিনি আগামী ২১ অক্টোবর পর্যন্ত সময় পাচ্ছেন।

মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত তদন্ত কমিটির সদস্যরা জরুরি আলোচনা শেষে সময় বাড়াতে কমিটির প্রধান বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বরাবর আবেদন করেন। প্রাথমিকভাবে এ আবেদনে অনুমোদন দেন উপাচার্য আব্দুল লতিফ।

এ বিষয়য়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রবীন্দ্র অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান ও তদন্ত কমিটির প্রধান লায়লা ফেরদৌস হিমেল জানান, ফারহানা ইয়াসমিনের আবেদনের প্রেক্ষিতে সম্পূর্ন মানবিক কারণে, তাছাড়াও চলমান শারদীয় পূজা, এবং ছুটি জনিত কারণে আমরা এই সময় বর্ধিত করেছি। এ ব্যাপারে আন্দোলনরত ছাত্রদের সাথেও কথা হয়েছে। তারাও এই সিদ্ধান্তের প্রতি সম্মাতি জ্ঞাপন করেছে।

অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে দুই সপ্তাহের সময় চেয়ে গত এক সপ্তাহ আগে ফারহানা ইয়াসমি বিশ্ববিদ্যালয়ের ই-মেইলে লিখিত আবেদন করেন। ওই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতেই তাকে সময় বাড়িয়ে সুযোগ দেওয়া হলো। আগামী ২১ অক্টোবরের মধ্যেই সশরীরে বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে তদন্ত কমিটির মুখোমুখি হয়ে আত্মপক্ষ সমর্থনে উপযুক্ত সাক্ষ্য বা বক্তব্য দিতে হবে। এটাই চূড়ান্ত বর্ধিত সময় বলে বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে।

উপাচার্য আব্দুল লতিফ বলেন, সময় না দিলে শিক্ষক ফারহানা উচ্চ আদালতের শরণাপন্ন হয়ে শেষ পর্যন্ত পুরো তদন্ত বা বিচার প্রক্রিয়াটাই ঝুলিয়ে দেওয়ার সুযোগ নিতে পারেন। এ জন্যই তাকে সময় দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৬ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস সংস্কৃতি ও বাংলাদেশ স্টাডিজ বিভাগের ১৪ জন শিক্ষার্থীর মাথার চুলকেটে দেওয়ার ঘটনায় রাতে বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র নাজমুল হোসেন তুহিন (২৫) ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন, এরই প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাতে অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন দায়িত্বে থাকা ৩টি পদ থেকে পদত্যাগ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *